প্রথম পাতা > অপরাধ, আন্তর্জাতিক, ইসলাম, ধর্মীয়, মিডিয়া, রাজনীতি > ইস্তাম্বুলে বোমাবাজি নিয়ে ওয়াহহাবীদের সংবাদ বিশ্লেষণ

ইস্তাম্বুলে বোমাবাজি নিয়ে ওয়াহহাবীদের সংবাদ বিশ্লেষণ

ডিসেম্বর 11, 2016 মন্তব্য দিন Go to comments

ইদানীং আমরা প্রায় ঘন ঘন তুরস্কে বোমা বিস্ফোরণ, আত্মঘাতী হামলা, গোলাগুলি ইত্যাকার সন্ত্রাসবাদী কর্মকান্ডের খবরাখবর পাচ্ছি । প্রায় প্রতিবারই গণতন্ত্রের আলখেল্লা গায়ে চড়িয়ে স্বৈরশাসক বনে যাওয়া সুলতান এরদোগান এবং তার ছাপোষা মন্ত্রীদের নিশ্চিত করে বলতে শুনি (কোনো রকম তদন্ত না করে) যে, এসবের পেছনে পিকেকে কুর্দীরা জড়িত । শুধুমাত্র বিমানবন্দরে সন্ত্রাস কর্মকান্ডের দায় আইএসএর ওপর চাপানো হয়েছিলো।

মজার ব্যাপার হচ্ছে, ন্যাটোভুক্ত ইউরোপীয় দেশসমূহের অস্ত্র ও মুসলিম সন্ত্রাসী সরবরাহ দ্বারা এবং মধ্যপ্রাচ্যের রাজন্যবর্গের (বিশেষত সৌদী আরব, কাতার, জর্ডান ও সংযুক্ত আরব আমিরাত) আর্থিক ও জনবল সহায়তায় ওয়াহহাবী সুলতান এরদোগান এই আইএসকে সর্বাত্মক সাহায্যসহযোগিতা দিয়ে আসছে সিরিয়ার বাশার সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে (আসাদের বিরুদ্ধে নানারকম অতিরঞ্জিত ও মিথ্যা অভিযোগ আনয়ন করে) পাশ্চাত্যের আজ্ঞাবহ কোনো ওয়াহহাবী/সালাফী মতাদর্শী ব্যক্তিকে আসাদের স্থলাভিষিক্ত করতে । কিন্তু বিধি বাম ! ইরানী, হিযবুল্লাহ ও রাশানরা এসে তাদের বাড়া ভাতে ছাই দিয়েছে আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করা এখন সুদূরপরাহত হয়ে দাঁড়িয়েছে । শুধু তাই নয়, দুধকলা দিয়ে পোষা আইএস হয়ে উঠেছে ফ্রাঙ্কেনষ্টাইনীয় দানব ! আগের মতো যথারীতি সাহায্য না পেয়ে তারা এবার খোদ তাদের পৃষ্ঠপোষক তুরস্কের ওপর মাঝেমধ্যে ঝাঁপিয়ে পড়ছে ।

ওদিকে দুষ্ট এরদোগান এসব ডামাডোলের সুযোগ নিয়ে আইএসকে “সাইজ” করার নামে সিরিয়া ও ইরাকের সার্বভৌমত্বের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে তাদের সেনাবাহিনী অনুপ্রবেশ করিয়েছে স্বাধীনতাকামী কুর্দীদের নির্বিচারে হত্যা করার জন্য। তুরস্ক, সিরিয়া, ইরাক ও ইরান জুড়ে বসবাস করা এই কুর্দীরা নানা ধরণের বঞ্চনার শিকার । বৈধ উপায়ে প্রতিকার না পেয়ে দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ায় তারা অস্ত্র তুলে নেয় মাঝেমধ্যে । আর এরদোগান এই কুর্দীদের দমন করার জন্য হত্যাকান্ডের পথ বেছে নিয়েছে । যার ফলে যা হবার তাই হচ্ছে । কুর্দীরা পাশ্চাত্যের অস্ত্র ও সামরিক প্রশিক্ষণ নিয়ে এরদোগানের সুলতানাতে ঝাঁপিয়ে পড়ছে সুযোগ পেলেই । এবারো তার ব্যতিক্রম কিছু হয়েছে বলে মনে হচ্ছে না । কারণ মাত্র দুদিন আগে তুরস্কের বিমানবাহিনী আচমকা ইরাকে আক্রমণ করে ২৯ জন কুর্দীকে হত্যা করে । সুতরাং এটা হওয়া স্বাভাবিক যে, কুর্দীরা ঐ হত্যাকান্ডের প্রতিশোধ নিতে তুরস্কে হামলা চালাবে ।

কিন্তু ওয়াহহাবী মতাদর্শীরা সব সময় এসব সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে ইহুদী ষড়যন্ত্রের গন্ধ পায় । ঘুণাক্ষরেও তাদের মনে হয় না যে, অন্য কেউ এসব সন্ত্রাসী করতে পারে । হিংস্র ওয়াহহাবী মতাদর্শে বিশ্বাসী কাতারভিত্তিক আলজাজিরা, জামাতশিবির ও তাদের পদলেহী বিডিটুডে সন্দেহের তীর ছুঁড়ে দিয়েছে ইসরাইলের দিকে । তুরস্কে অধ্যয়নরত এক জামাতশিবির কর্মী আবু সালেহ ইয়াহইয়া (বিডিটুডে যাকে তুরস্ক বিশেষজ্ঞ বানিয়েছে) ইসরাইলের সাথে সখ্যতার বিষয় বোমাবাজির কারণ হিসেবে টেনে এনেছে অথচ খোদ তুরস্ক পিকেকে কুর্দীদের ওপর দোষারোপ করেছে এবং ইতোমধ্যে আগের মতো বিমান হামলাও চালিয়েছে । মজার ব্যাপার হচ্ছে, এই নির্লজ্জ বিডিটুডে আজকে আবার কুর্দীদের স্বীকারোক্তিমূলক একটি সংবাদ পরিবেশন করতে বাধ্য হয়েছে !

মুসলিম ব্রাদারহুডের একনিষ্ঠ পৃষ্ঠপোষক এরদোগানের মান বাঁচাতে তার সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও দোষত্রুটির দিকে দৃষ্টিপাত করতে নারাজ । মুসলমানদের চিরশত্রু ইসরাইলের সাথে যে তুরস্কের কূটনৈতিক, বিমান চলাচল ও মধুর বাণিজ্যিক সম্পর্ক আছে তা নিয়ে কোনো উচ্চবাচ্য নেই বরং সেটা জায়েয করার জন্য বাহানা তৈরী করে । এরাই আবার সৎ মানুষের শাসনের কথা শোনায় আমাদের এবং সহীহ ইসলামের ধারকবাহক বলে পরিচয় দেয় ! ক্ষমতা পেলে এরা যে কোন দানবের ভূমিকায় অবতীর্ণ হবে তা আঁচ করতে নিশ্চয়ই অসুবিধা হবার কথা নয় ।

istanbul-blast-suspect-1istanbul-blast-suspect-3aistanbul-blast-suspect-3bkurdi-behind-istanbul-bombing

Advertisements
  1. কোন মন্তব্য নেই এখনও
  1. No trackbacks yet.

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: