প্রথম পাতা > গ্রামবাংলা, পরিবেশ, বাংলাদেশ, ভ্রমণ > নিসর্গের অপরূপ মেলা সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওর

নিসর্গের অপরূপ মেলা সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওর

নভেম্বর 17, 2016 মন্তব্য দিন Go to comments

tanguar-haorমনোয়ার জাহান চৌধুরী : নানা পরিচয়ে পরিচিত সুনামগঞ্জ। সংস্কৃতির তীর্থ স্থান কিংবা মৎস্য, পাথরধানের সম্পদ হিসেবে পরিচিতি এই সুনামগঞ্জের। কিছু কিছু ক্ষেত্রে বঞ্চনার গ্লানি টানলেও অনেক ক্ষেত্রে সুনামগঞ্জ বিলিয়ে দিয়েছে তার রূপরহস্য! প্রাকৃতিক সম্পদও যেন হাওরঘেরা জনপদ সুনামগঞ্জকে দেশ কিংবা দেশের সীমার বাইরেও আলাদাভাবে পরিচয় করে দিয়েছে। মরমী কবি হাছন রাজা ও বাউল সাধক শাহ আবদুল করিমের এই জেলায় রয়েছে স্বচ্ছ জল আর ছায়াবৃক্ষ হিজল করচের হাওর ‘টাঙ্গুয়া’। যার অবস্থান সিলেট বিভাগীয় শহর থেকে (বর্ষা মৌসুমে) ১০৭ কিলোমিটার দূরত্ব ভাটির জনপদ বলে খ্যাত সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে। হেমন্তে এর দূরত্ব আরো বাড়ে। আবার বর্ষায় এ হাওরে জলরাশির আয়তনও বেড়ে যায়। তাহিরপুরধর্মপাশা উপজেলার ৯ হাজার ৭২৭ হেক্টর এলাকা নিয়ে টাঙ্গুয়ার হাওর। হাওর এলাকায় রয়েছে ছোটবড় ৫২টি বিল ও ৮৮টি গ্রাম। ভারতের মেঘালয় পাহাড়ের কোলঘেঁষা টাঙ্গুয়ার হাওর পর্যটকদের কাছে আকর্ষণীয়। প্রকৃতির অবিশ্বাস্য দান রয়েছে যেখানে। ত্রি মিতালীর দেখা মেলে এই ‘টাঙ্গুয়ার’ হাওরে।

সেপ্টেম্বর মাসে প্রকৃতির অফুরন্ত দান টাঙ্গুয়ার হাওরে ‘জ্যোৎস্না’ উৎসব হয়ে গেল। এদিকে টাঙ্গুয়া হাওরের নয়নাভিরাম দৃশ্য মুগ্ধ করে ভ্রমণপিপাসুদের। যেখানে অনবরত শোনা যায় অতিথি পাখির কলতান। আসছে শীতে অতিথি পাখির আগমন ঘটবে স্বচ্ছ জলের হাওর টাঙ্গুয়ায়। একই সঙ্গে আকাশপাহাড় ও জলের মিতালীও দারুণ কাছে টানে ভ্রমণপ্রেমীদের! তাই দেশবিদেশ থেকে অগণিত পর্যটক ছুটে যান টাঙ্গুয়ার হাওরের সৌন্দর্য আর জীববৈচিত্র্য উপভোগ করতে।

আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকায় প্রতিনিয়ত সেখানে ঘুরতে যাচ্ছেন পর্যটকরা। আর এই পর্যটকদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করেই টাঙ্গুয়ার হাওরে কাজ শুরু করবে ট্যুরিস্ট পুলিশ।

১১ নভেম্বর টাঙ্গুয়ার হাওরে সাংবাদিকদের নিয়ে ব্যতিক্রমী ভ্রমণের আয়োজন করেন সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি। ভ্রমণকালে টাঙ্গুয়ার হাওরে ওয়াচ টাওয়ার এলাকা ও ট্যুরিস্ট পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপনের জন্য স্থান ঘুরে দেখেন। এ সময় ট্যুরিস্ট পুলিশের কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি মো. মিজানুর রহমান পিপিএম।

ডিআইজি মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, টাঙ্গুয়ার হাওরে বিপুল সংখ্যক পর্যটক আসেন। তাদের নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করে পাশাপাশি পর্যটকদের সুবিধার জন্য আর কী কী করা যায়, এ জন্যই মূলত এখানে আসা। তা ছাড়া ট্যুরিস্ট পুলিশ কার্যক্রম এখনো শুরু করেনি। আমরা চাচ্ছি এখানে ট্যুরিস্ট পুলিশ পর্যটকদের নিরাপত্তায় সার্বক্ষণিক দায়িত্বে থাকবে।

তিনি আরো বলেন, সঠিক নিরাপত্তা থাকলে এখানে অনেক অনেক পর্যটক আসবে। তবে এখানে আসার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি সমস্যা হচ্ছে যাতায়াত। এ এলাকায় পর্যটকদের থাকাখাওয়ার ব্যবস্থা নেই, টয়লেট সুবিধাও নেই। সরকারের উচ্চ পর্যায় এ বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করছেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমদ, সিলেট রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি মো. নজরুল ইসলাম, সিলেট জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজ্ঞান চাকমা, ট্যুরিস্ট পুলিশ ও সুনামগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত সুপারসহ পুলিশের পদস্থ কর্মকর্তা, প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক ও অনলাইন নিউজ পোর্টালের সাংবাদিকরা।

যেভাবে যাওয়া যাবে টাঙ্গুয়ায়: বিভাগীয় শহর সিলেট থেকে প্রাইভেট বাসে কিংবা সুনামগঞ্জমুখী বাসে যাতায়াত করা যাবে। সিলেট থেকে প্রথমে সুনামগঞ্জ যেতে হবে। দূরত্ব ৬৮ কিলোমিটার। সুনামগঞ্জ শহরে প্রবেশের আগে মল্লিকপুরস্থ সুরমা নদীর ওপর দিয়ে আবদুজ জহুর সেতু হয়ে তাহিরপুর যেতে হবে। এই সেতু থেকে টাঙ্গুয়ার উপজেলা তাহিরপুরের দূরত্ব ৩৩ কিলোমিটার। প্রাইভেট বাসই ভরসা, স্থানীয় ছোট ছোট ব্যাটারি চালিত রিকশা আর মোটরসাইকেল তো রয়েছেই। যাতায়াত খরচ একটু বেশিই হবে। তাহিরপুর পৌঁছার পর ইঞ্জিন চালিত নৌকাযোগে প্রায় ২ ঘণ্টার বিরামহীন পথ চলার পর হিজলকরচ, স্বচ্ছ জল আর অতিথি পাখির আনাগোনায় পৌঁছা যাবে। প্রায় ৫ ঘণ্টার ভ্রমণ। তাই সুযোগ করেই তাহিরপুর কিংবা ভালো কোথাও নাস্তা সেরে নিতে হবে।

Advertisements
  1. কোন মন্তব্য নেই এখনও
  1. No trackbacks yet.

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: